what is famine in 2017? ২০১৭ সাল কি দুর্ভিক্ষের আভাস? 

৭৪ এর দুর্ভিক্ষ এদেশের মানুষ অনেকেই দেখেছে,, কিনতু এই ২০১৭ সাল মানুষের কি আরেক টা দুর্ভিক্ষের জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। সরকার জাতিসংঘের সদর দপ্তরে দাড়িয়ে,,  চালের দাম আকাশ ছুই ছুই,, সাধারণ লোকের হাতের নাগালের বাইরে,,  ১৭ কোটি লোকের মধ্যেই যেখানে ৪০ টাকা ধরে মানুষের চাল কেনার সাধা নেই,  সেখানে মিয়ানমার থেকে আশা আরো ৪লাখ রোহিঙ্গার আগমন আমাদের জন্য সুখকর নয় তা যেন এদেশের মাটি ও মানুষ কে জানান দিচ্ছে । গত কদিনে চালের দাম বেরে ৪০থেকে বর্তমানে ৮০ /৮৫ টাকা কেজি ধরে বিক্রি হচছে। আমি আশা করছি সরকার একটু সাবধান হবেন নতুবা বা:লাদেশে ৭৪ এর দুর্ভিক্ষ ২০১৭ সালে আমাদের দেখতে আর বাকি থাকবে না। 

Everybody in the outcome of Rohingya,,,,,,,,,,,,,,,, R.M.Al-Amin 

  1. মিয়ানমার সরকার যা রোহিঙ্গা দের সাথে করছে, সেটা কোন সভ্য জাতি মানুষের সাথে করতে পারে না। মানবাধিকার লঃগন করে যদি একটা দেশ পার পেয়ে যায়, তবে আজ আমরা জাতিসংঘ নামক স:সথা দিয়ে কি করবো,, মানুষের ভুল শোধরানো মানুষের কর্তব্য,, কতিপয় কয়েকজন বড় নেতার রোশানলে কেন সারা পৃথিবী তাদের হাতের মুঠোয় থাকবে। আমি শুধু এটুকুই বলব পৃথিবী কে দুটো বলয়ে না ভেবে আপনারা মানুষের কল্যানের জন্য,,, নিজেদের ব্যায় করুন, আদিম প্রথা ভুলে নতুন কিছু করেন। যার ফলাফল আগামি প্রজন্ম শতাবদি কাল মানুষ নাম নিয়েই বাচতে পারেে,, তা না হলে হয়তো  প্রত্যেকেরই রোহিঙ্গা দের মত একদিন পরিনতি হতে পারে। 

THE LIVES OF ROHINGYAS,teknaf to ukhia,,,,,,R.M.Al-Amin 

উখিয়া থেকে টেকনাফের বেরিবাদ প্রায় ৭০/৭২ কিলোমিটার পথ,,,আমি দেখেছি রোহিঙ্গা দের কি কষটের জীবনচি্ত্র। মাথা গোজার ঠাই নাই,, পরনে নেই কাপড়, অনাহারক্লিষ্ট, বাচ্চা গুলোর না খেয়ে পথের মধ্যেই ঘুমিয়ে আছে। রাষ্ট্র যন্ত্র টেলিভিশনের মাধ্যমে মনগড়া বক্তব্য পাঠাচ্ছে। এদের ভাগ্যের পরিবর্তন কারো দরকার নেই,, সারা দুনিয়ার নিরহ মানুষেরা অবাক চোখে শুধু দেখছে,, কারন তারা কিছুই করতে পারে না। এদের বাচাতে পারে একমাত্র দেশ যার নাম বাঃলাদেশ,,,,, কিনতু কখুনোই এটা চায় না এই দেশ কারন চার পাশে যে সব দেশ আছে  তারা সবাই মিয়ানমারের মিত্র দেশ। মিত্রদের বিরুদ্ধে সরকারের এক পা ফেলাও সম্ভব নয়। কারন তাহলে হয়তো রাষ্ট্র ক্ষমতা হারানোর সম্ভবতা। আমার যতদুর মনে হয় তাতে,, রোহিঃগা রা হয়তো ইহুদি নিধনের মতন আরেক টা ঘটনার জন্ম হতে চলছে। করন বাঃলাদেশ সরকার কখুনোই এদের নাগরিকত্ব দেবে না।