পাঠকগণ,
আমি সত্যি খুব চিন্তিত। কারন, বাংলাদেশসহ এই মুহুর্তে, আমরা প্রায় 70টি দেশ, লকডাউনে আটকে আছি। করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব আছে, এটা অস্বীকার করা সম্ভব না। ইতিমধ্যেই বহুলোকজন এই রোগে আক্রান্ত হয়েছে, এবং মৃতাও ঘটেছে।

আপনি কি মনে করেন, লকডাউনই এর সমাধান। আসলে কিন্ত ব্যাপারটি মোটেও তাহা নয়। কারন ঘরে বন্দি থাকলে, আমরা আরো বিভিন্ন রোগে জরিয়ে যাবো, এটা আপনি অস্বীকার করতে পারবেন না।

এবার হয়তো ভাববেন, তাহলে সমাধান কোথায়? পাঠক এই প্রশ্নতেই আটকে থাকুন। বিস্তারিত আমি একটু পরেই জানাচ্ছি। তার পূর্বে আপনাদেরকে, আমার লেখাএকটা ছোটগল্প থেকে ধারনা দিচ্ছি এটা মনোযোগ দিয়ে শুনুন,,,

আমি একটা সিরিয়াল উপন্যাস লিখতাম “একজন মুক্তিযোদ্ধা ” গল্পটি প্রায় ১০০ পর্ব লেখার পর, দেখলাম, এরই আদলে একটা ঘটনা ঘটে গেছে টাংগাইল জেলায়।অতঃপর আমি ঐ সিরিয়ালটটি আর লেখিনাই। কারন, আমার মনে হয়েছিল লেখাটি হয়তো ভূল শিক্ষা দিচ্ছে।

আরেকটি ঘটনা হলো,
“আর্থারবেন” নামে একটা ছোটগল্প প্রকাশ করেছিলাম ব্লগে, মাত্র কয়েকপর্বে। ওই গল্পটি আমি ফিউচার নিয়ে লিখেছি। আমার চিন্তা ছিল, গল্পের ঘটনাটি হয়তো ১০০ বছরপরে ঘটতে পারে।
কিন্ত না, গল্পের কাহিনী আর বর্তমান বাস্তবতায় আমারা খুবই নিকটে পৌছে গেছি।
ওই গল্পে মানুষের জীবন বিপন্ন হয়। আর্থারবেন মূলত পৃথিবীপুত্র। আমি বর্তমানে (করোনাভাইরাসে) আর্থারবেন এর চরিত্র দেখতে পাচ্ছি।
আমি ঠিক এই কারনেই চিন্তিত। যে তবে কি এটা এখুনই ঘটবে?
মাস্ক আর লকডাউন কি আমাদের বাচাতে পারবে?
আশারবাণী হলো হ্যা,,, আমি স্বীকার করি, যদি আর্থারবেন এর ঘটনাই ঘটে, তবে মাস্ক ও লকডাউন অন্তত কিছু মানুষকে বাচিয়ে রাখতে সক্ষম হবে।
তবে পার্থনা
, এই মরনখেলা থেকে আল্লাহ আমাদের রক্ষা করবে।

রুদ্র ম আল-আমিন
এম এস এস (রাষ্টবিজ্ঞান)