” অধরা ”
রুদ্র ম আল-আমিন

অধরা,,,
একটা নিকোটিন নেশা,,,
আমায় খুজে ফেরে প্রতিদিন।
আমি পালাতে চাই,,,
এখুন ফিরতেও পারি না,
যৌবন টগবগ করছে প্রতিক্ষণ তোমাকে পাবার
অহর্নিশ খুজি ফিরি পথে পথে
পথিক, আমায় দেখেই হাসে,
সে কি আসিবে ফিরে,,
অধরা,,,
বাবার চোখ খোলা আর মা
সারাদিনই উপোস
নিরিবিলি কথা বলিঃ
একটা বোবা কান্না ওপারে দাড়িয়ে কাঁদে
অধরা,
তুমি কাঁদছো কেন?
আমি যে পৌরষকাল অপেক্ষা,
মানুূষ এরকমই হয়
অথচ,তুমি দেখ,,,
হিজলের ফুল আবার ফুটেছে
দখিনা বায়ু ব্যামো সাড়ায়
আমি যে আজকাল কি ভাবি।
থাক না এসব কথা, আবার তো ভোর হবে।
অধরা,,
ভালবাসি তোমাকে, ,তুমিও
আজ থাক না এসব
রাতে সাগত করা হয়নি,,,
ছি-ছি-ছি— তা কি করে হয়
আবার ফিরিব আমি, তুমি দেখো
কি নামে,,,,
অধরা,,,
একটা নাম দাও না আমায়,,
শুধু সাগত জানাব,,
কিচছু চাইব না তোমার কা্ছে।
আমার কাছে থাকবে?
ভালবাসতে পারো আর একবার,,
আপন মনে,
অধরা
বেলতলায় ডুমুর গাছেও ফুল
তুমি কত যত্ন করতে,,
সকালে দুটো শালিক আজো এসেছিল
জানো,, পুরুষটা খোড়া
অধরা
কেন এমন হয়? আমিও
আমার মতোন সব কেন?
কেন তোমার মত হয় না? হতে পারে না।
অধরা,,
আমি খুব খুব যন্ত্রনায় আছি।
March 19.2018