” কষ্টের জীবন তরী”
রুদ্র ম আল-আমিন

আজি দুর হতে চাহিয়া দেখি
কষ্টে কষ্টে নিঃশেষ হইয়া গিয়াছে মোর সোনার জীবন তরী।
যখুন আন্ধার রাইতে উঠিয়া নিজে মুগুরখানি ধরি,
তখুন বাজানের পায়ে দেখিয়াছি সোনার প্রলেপ মাখিয়া ফিরিতেছে বাড়ী।
গোয়ালের পাড়ে দাড়াইয়া জননী নিভীর মনে
আলগোছে কয়,
এই রে তর বাজানে বুঝি আইলো বাড়ী।
সোনার প্রতিমার হাতখানি ভরি
গুবরের ঝাঁকা লয়ে ছুটিছে সে তখুন ফাঁকা বাড়ী।
চোক্ষের দুই কোণে মুদিয়ায় জল
নিমিশে রক্ত চক্ষু হইয়া গেছে তখুন আঁখি ভরি।
এমনি একদিন কুয়াশার রাতে
প্রতিমা গিয়াছে সেইদিন বাপের বাড়ী চলে।
ঘুমের ঘোরে শ্বপ্নে পড়িছিল তাঁরে মনে
সাজবেলায় সেইদিন বাবায় খুব করে বকাঝকা করেছিল তবে।
মায় কথা কহিবার কালে,
শ্বপাং স্বপাং মেরেছিল পোষালাঠি খানি দিয়ে তাঁরি ।
এখানেই শেষ নয় গো বাবু
এরপর মায়রে দিয়াছিল বাপে ছাড়ি।
আজি দুর হতে কষ্টে কষ্টে কত কিছুই ভাবি।
November 02.2018

published by,,,,www.kagoj24bd.com