” রক্তভেজা ছেঁড়া সার্ট”
রুদ্র ম আল-আমিন

মা, ঐখানে বাজানে ঘুমায়ে রয়
ঐখানে দিদি:
রাত্রী হ’লে আমি ক্যান ঘুমাতে পারি না বাজান দিদিকে ছেড়ে?
শুনেছি বাজানের মেলা শত্রু ছিল,
একদিন আমি, চিনিব তাহাদের কেমন করে?
বাজানের রক্তভেজা ছেঁড়া সার্ট
তুমি দ্যাখোনি সে সব,,,
জানো, আমি দেখেছি বাজানের মন্ডু
যেন আমায় আজো বলিতেছে
ছাড়িস না বাবা, ছাড়িস না তুই ওদের।
মা! ওরা কারা ছিল?
দিদি, সারারাত গল্প শোনাতো,
ঘুমের ঘোরে চিৎকার করতাম, বলতামঃ
দি-দি-দি–দি—-
আমার সেই দিদি
আজ ঝোপের ধারে শুয়ে থাকে
মা, আমিও থাকতে চাই দিদির পাশে?
শকুনেরা ছিঁড়ে খেল দিদির দেহ
বিবস্র দিদি উঠোনের কোলে
বলো মা এই সব আমি ভুলিব কি করে?
কাকা, নির্বাক কন্ঠে
বাজানের নিথর দেহটার পাশে তখুন।
সেদিন আমার বাকরুদ্ধ!
বলো মা,মাঝরাতে তুমি ক্যান সেইদিন মামা বাড়ি গেলে?
02February 2019

Advertisements